হারানো ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম lost nid reissue online

আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র টি হারিয়ে গেছে। কিন্তু আপনি জানেন না কিভাবে হারানো ভোটার আইডি বা জাতীয় পরিচয় পত্র আবার উত্তলন করবেন। তাই এই বিষয় দেখিয়ে দিতে চেষ্টা করবো কিভাবে পোরাতন আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র বের করবেন ঘরে বসে নিজের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে।
আমরা যারা মোসলমান আছি তাহের জন্য রোজা ও রজার মাস খুবি গুরত্তপূর্ণ আপনি কি জানেন বাংলাদেশে রোজা কবে থেকে শুরু ২০২২? না জেনে থাকলে রমজান ২০২২ এর সেহেরি ও ইফতারের সময়সূচি দেখেনিন।  

হারানো ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

নষ্ট হয়ে যাওয়া বা হারানো NID CARD বা জাতীয় পরিচয় পত্র উত্তলনের জন্য প্রথমে আমাদের কিছু ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে। চলুন দেখে নেই হারানো আইডি কার্ড বের করতে কি কি কাগজপত্র লাগে?
NID Card এর তথ্য বের করার জন্য নিচের ডকুমেন্ট গুলোর প্রয়োজন।
  1. এনআইডি কার্ডের বা জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করা।
  2. স্লিপের নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র বের করার নিয়ম
  3. ব্যক্তির ভোটার নাম্বার দিয়ে NID card বের করা।
৪ ব্যক্তির বর্তমান ঠিকানার থানায় একটি GD করা লাগবে


উপরের ডকুমেন্টসের ১,২,৩ এর মধ্য থেকে যে কোনো একটি এবং থানায় জমাকৃত জিডি কপি এবং সাথে আপনার জন্ম তারিখ প্রয়োজন হবে।

 বাংলাদেশে আসতে চলেছে শাওমি রেডমি note 12 প্রো দাম কত ২০২২। বাংলাদেশে Xiaomi 12 Pro price  কত হবে জেনে নিন বিস্থারিত।

ব্যক্তির মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র
সিম নাম্বার দিয়ে ও জাতীয় পরিচয়পত্র তথ্য বের কারা যায় তবে এটা একটি জটিক পক্রিয়া পরবর্তীতে এটা নিয়ে একটি পোস্ট লিখবো।

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

ধরে নিলাম আপনার কাছে জাতীয় পরিচয়পত্রের স্লিপ অথবা আপনার NID  card এর নাম্বার অথবা আপনার ভোটার নাম্বর সংগ্রহ করতে পেরেছেন।

জানেয়ারি মাসে বাংলাদেশে রিলিজ হতে চলেছে Vivo V23 Pro 5G 2022 বিস্তারিত জেনে নিন Vivo V23 pro দাম কত ও কিকি বিশেষ ফিচার নিয়ে এলো Vivo.

এখন চলুন দেখি-

কিভবে অনলাইন থেকে এন আই ডি কার্ড নিজে নিজে ডাইনলোড করবেন।

  • প্রথমেই আপনাকে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য অনুসন্ধান
  • এই পেজে রেজিস্টার, আবেদন লগইন এই ৩ টি অপশন পেয়ে যাবেন। যেহেতু আপনি এই পোস্টটি এতটুকু পড়েছেন তার মানে আপনি এর আগে কখনো জাতীয় পরিচয় পত্র অ্যাকাউন্ট রেজিষ্ট্রেশন করেন নি।
  • যদি আগে অ্যাকাউন্ট করা থাকে তাহলে লগইন করুন।
  • যেহেতু আমাদের অ্যাকাউন্ট নেই তাই রেজিষ্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করবো।
  • এখন নিচের ধাপগুলো অনুসরন করি।

NID নতুন সার্ভারে রেজিষ্ট্রেশন পদ্ধতিঃ

  1. জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর / ফর্ম নম্বর এর ঘরে আপনার ফর্ম ( স্লিপ) নাম্বার অথবা nid card এর নাম্বার লিখুন
  2. জন্ম তারিখের ঘরে পর্যায়ক্রমে জন্ম দিন জন্ম মাস ও জন্ম সাল লিখুন
  3. শেষের ঘরে একটি ক্যাপচা কোড লিখে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।
তথ্য সঠিক থাকলে আশা করছি এই এই ধাপটি সফলভাবে করতে পেরেছেন। 
এখন পরবর্তী ধাপে আপনার ঠিকানা যাচাই কারা হবে।

স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা
  • স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা যেমন আপনার বিভাগ, জেলা,উপজেলা বাছাই করবেন। স্তায়ী ও বর্তমান ঠিকান আলাদা আলাদা হলে সে অনুযায়ী বাচাই করে বহাল বাটনে ক্লিক করবো।
  • আপনার ঠিকানা সঠিক হলে পরবর্তী ধাপে নিয়ে যাবে যেখানে আপনার মোবাইল ফোন ভেরিফাই করা হবে।
  • যদি আগে থেকে নাম্বার দেয়া থাকে ও সেটি আপনার কাছে থাকে তাহলে বার্তা পাঠান অপশনে ক্লিক করুন।
  • অন্যথায় আপনার ফোন নাম্বার দিয়ে বার্তা পাঠান এ ক্লিক করুন।
  • এখন আপনার ফোনে কোড আসবে কোড বসিয়ে বহাল করুন।
  • অ্যাকাউন্ট করা শেষ, এখন চাইলে পাসওয়ার্ড দিতে পারেন না চাইলে এরিয়ে যান এ ক্লিক করুন।
  • আপনার সামনে আপনার ছবি সহ যাবতীয় তথ্য দেখাবে। এখন কাজ হলো জাতীয় পরিচয় পত্র রিইস্যুর জন্য আবেদন করা।
সবচেয়ে ভালো হবে আবেদনটি ভিডিও আকারে দেখে করা।
তাই আমি আবেদনের প্রকৃয়াটির ভিডিও নিচে দিয়ে দিবো।

জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান

জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান বা আমাদের জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য হালনাগাদ সঠিক আছে কিনা তার জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য অনুসন্ধান করার প্রয়োজন হয় কিভাবে আমরা আমাদের জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য অনুসন্ধান করতে পারব এবং তথ্যগুলো সঠিক কিনা ভুল থাকলে কিভাবে সংশোধন করব তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছে

আমাদের জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য অনুসন্ধান করার জন্য নিম্নে অনেকগুলো পদ্ধতি বর্ণনা করা হলো আপনার প্রযুক্তি গুলো অনুসরন করে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের বর্তমান তথ্য অনুসন্ধান বা জাতীয় পরিচয় পত্র সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাবেন।

পুরাতন আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

আপনি পুরাতন আইডিকার্ড বলতে যদি ১৭ সংখ্যার এনআইডি কার্ড বা ১৩ সংখ্যার NID Card ডাউনলোড করার কথা বলে থাকেন তাহলে একটু পোস্টি পড়ুন।
আমাদের অনেক সময় পুরোনো ১৭ সংখ্যার আইডি কার্ড বা ১৩ সংখ্যার আইডিকার্ডের প্রয়োজন হয় 

জাতীয় পরিচয় পত্র পিন কী

স্মার্ট কার্ডের নাম্বার দিয়ে ১৭ সংখ্যার NID Card বা ১৩ সংখ্যার পুরোনো আইডি কার্ড বের করা সম্ভব?

উত্তর হলো কার্ড বের করা সম্ভব না। তবে আপনি চাইলে ১৭ সংখ্যার এনআইডি কার্ডের নাম্বারটি কি ছিল তা বের করতে পারবেন এবং ১৩ সংখ্যার এনআইডি নাম্বারটাও বের করতে পারবেন।

চলুন তাহলে দেখেনেই কিভাবে ১৭ সংখয়ার আইডি কার্ডের নাম্বার বের করবেন নিজে নিজে  আপনার পুরোনো কার্ডের ১৭ সংখ্যা বা ১৩ সংখ্যার নাম্বার বের করতে নির্বাচন কমিশন ওয়েব সাইটে যেতে হবে। আপনাদের সুবিধার জন্য ভিডিও আকারে দেয়া হলো।

ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

তার পর ভোটার তথ্য অনুসন্ধান পেজে যেতে হবে। এবং জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য অনুসন্ধান একটি ফর্ম দেখতে পারবেন। ওই ফর্মে মধ্যেই আপনার কাছে থাকা এনআইডি কার্ডের নাম্বার অথবা ভোটার নাম্বার অথবা স্ত্রীর নাম্বার এই তিনটির যেকোনো একটি দিয়ে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করে আপনার একাউন্ট থেকে আপনি জাতীয় পরিচয় পত্র টি ডাউনলোড করতে পারবেন।

হারানো আইডি কার্ড বের করার নিয়ম 

হারানো এনআইডি কার্ড নষ্ট হয়ে যাওয়া জাতীয় পরিচয় পত্র পুনরায় পেতে হলে আপনাকে আপনার নিকটস্থ থানায়  জিডি করে হ্যালো আইডি কার্ডের ফি প্রদান করে আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে অনলাইনে।
নষ্ট হওয়া বা  হারানো আইডি কার্ড আবার ডাউনলোড কিবাবে করা যায় তার উপায় এই পোস্টের প্রথম দিকে আলোচনা করেছি।

জন্ম তারিখ দিয়ে ভোটার আইডি বের করা

জন্মতারিখ দিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র বের করা সম্ভব তবে সাথে আপনার ভোটার ফর্ম নাম্বার অথবা ভোটার নাম্বার প্রয়োজন হবে। তথ্য গুলো থাকলে উপরের দেখানো নিয়মে ভোটার আইডি বের করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন

আপনি যদি ২০১৯ এর পর ভোটার হয়ে থাকেন তাহলে অনলাইনের মাধ্যমে কোনোরকম চার্জ ছাড়াই কার্ড বের করতে পারবেন।
এর জন্য আপনাকে নির্বাচন কমিশন সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করে আপনার কার্ডটি ডাউনলোড করে তারপর লেমেনেটিং করে ব্যবহার করতে পারবে।
রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া  উপরে দেয়া আছে। 

নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার পদ্ধতি

আপনি আপনার ভোটার আইডি বা ন্যাশনাল আইডি কার্ড বের করতে চাইলে প্রথমে নির্বাচন নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে
লগইন করে প্রোফাইল অপশন থেকে আপনার এনআইডি কার্ড টি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন

নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম
নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম ২০২১

নির্বাচন কমিশন মোবাইল নাম্বার

নির্বাচন কমিশন মোবাইল নাম্বার হলো ১০৫ 
তবে নির্বাচন কমিশনের হেল্পলাইন ইমেইল এড্রেস এবং ফোন কল করার সময় সম্পর্কে জানতে চাই এখানে ক্লিক করুন

জাতীয় পরিচয় পত্র

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন থেকে যে ভোটার আইডি কার্ডটি প্রদান করে সেটিই ব্যক্তির জাতীয় পরিচয় পত্র বা National Identity Card. এই কার্ডটিই ব্যক্তির জাতীয়তা ধারন, প্রকাশ ও প্রমান করে।

কিভাবে অনলাইন থেকে স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড করবেন দেখুন

অনলাইন থেকে যদিও পিডিএফ আইডি কার্ডটি ডাউনলোড করে লেমেনেটিং করে ব্যবহার করা যায়, কিন্তু অনলাইন থেকে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড করার কোনো সুযোগ নেই। তবে আপনি নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশ অফিসে গিয়ে হারানো স্মার্ট  এনআইডি কার্ডটির জনয় আবেদন করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান

nid card এর তথ্য জানার পদ্ধতিটিই মুলত জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য অনুসন্ধান বলে থাকে।
অনলাইন থেকে কি কি জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান করা যায়?
NID নাম্বার দিয়ে ভোটার এলাকা,ভোটার সিরিয়াল নাম্বার ও পিন জানতে পারবেন। এখানে পিনটা কি তা জানতে পিন কী বাটনে ক্লিক করুন।

নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কিভাবে

নির্বাচন কমিশন সাইট থেকে অনলাইনে ঘরে বসে নিজের মোবাইল ফোন দিয়েই ভোটার কার্ড দেখতে ও ডাউনলোড করতে পারবেন। এ নিয়ে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করেছ। অনুগ্রহ করে একটু পড়েনিন।
সেকানে অনলাইন থেকে নিজের আইডি কার্ড সংগ্রহ করার উপায় খুব ভালো করেই বুঝানো হয়েছে।

আপনি যদি পোস্টটি পড়তে পড়তে এই পর্যন্ত এসে থাকেন তাহলে আমি নিশ্চিত আপনি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে যত সমস্যা তার সমাধান পেয়েছেন। যদি সামান্য পরিমান উপকারে এসেথাকে তাহলে একটু পোস্ট টি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়র করবেন।

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত দিন লাগে

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

প্রয়োজনীয় পোস্ট